‘বিজ্ঞান’ শব্দের সঠিক যুক্তবর্ণের সঠিক রূপ কোনটি?

Rate this post

‘বিজ্ঞান’ শব্দের যুক্তবর্ণটি হল ‘জ্ঞ’। ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণটি ‘জ’ এবং ‘ঞ’ মিলে গঠিত। ‘জ’ এবং ‘ঞ’ উভয়ই ‘ঝ’-এর মতো উচ্চারিত হয়। তবে ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ ‘ঝ’-এর চেয়ে একটু বেশি তীব্র হয়।

বাংলা ভাষায় দুই বা ততোধিক ব্যঞ্জনবর্ণ একত্রিত হয়ে যে বর্ণ গঠিত হয়, তাকে যুক্তবর্ণ বলে। বাংলা ভাষায় মোট ১০৮টি যুক্তবর্ণ রয়েছে।

‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণটি দিয়ে গঠিত কিছু শব্দ হল:

  • জ্ঞান
  • বিজ্ঞান
  • সংজ্ঞা
  • জ্ঞেয়
  • জ্ঞেয়তা
  • অজ্ঞ
  • অজ্ঞতা

অনেকেই ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণটিকে ‘ঞ্জ’ বা ‘ঞ্জ’ হিসেবে ভুল করে লিখতে পারেন। তবে এটি ভুল। ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণটি কেবলমাত্র ‘জ’ এবং ‘ঞ’ মিলে গঠিত হয়।

সুতরাং, ‘বিজ্ঞান’ শব্দের সঠিক যুক্তবর্ণের সঠিক রূপ হল ‘জ্ঞ’।

বিজ্ঞান শব্দের সঠিক যুক্তবর্ণের সঠিক রূপ

বিজ্ঞান’ শব্দের সঠিক যুক্তবর্ণের সঠিক রূপ: ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণটি ‘জ’ এবং ‘ঞ’ মিলে গঠিত। ‘জ’ এবং ‘ঞ’ উভয়ই ‘ঝ’-এর মতো উচ্চারিত হয়। তবে ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ ‘ঝ’-এর চেয়ে একটু বেশি তীব্র হয়।

বাংলা ভাষায় যুক্তবর্ণের উচ্চারণ এবং বানানের ক্ষেত্রে কিছু নিয়ম রয়েছে। এই নিয়মগুলি অনুসরণ করে ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের সঠিক উচ্চারণ এবং বানান করা সম্ভব।

‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ

‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণটি ‘জ’ এবং ‘ঞ’ মিলে গঠিত। ‘জ’ এবং ‘ঞ’ উভয়ই ‘ঝ’-এর মতো উচ্চারিত হয়। তবে ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ ‘ঝ’-এর চেয়ে একটু বেশি তীব্র হয়।

‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ করার সময়, মুখের ভেতরের তালু এবং জিহ্বার মাঝখানে একটি বন্ধনী তৈরি হয়। এই বন্ধনীর মধ্যে দিয়ে বাতাস বেরিয়ে আসতে পারে। এই কারণে ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ ‘ঝ’-এর চেয়ে একটু বেশি তীব্র হয়।

‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের বানান

‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণটি কেবলমাত্র ‘জ’ এবং ‘ঞ’ মিলে গঠিত হয়। ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের বানান করার সময়, ‘জ’ এবং ‘ঞ’ দুটি বর্ণকে পাশাপাশি লিখতে হবে।

‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের বানান ভুল করার একটি সাধারণ ভুল হল ‘জ্ঞ’-কে ‘ঞ্জ’ বা ‘ঞ্জ’ হিসেবে লিখতে। তবে এটি ভুল। ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণটি কেবলমাত্র ‘জ’ এবং ‘ঞ’ মিলে গঠিত হয়।

কিছু গুরুত্বপূর্ণ টিপস

  • ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ করার সময়, মুখের ভেতরের তালু এবং জিহ্বার মাঝখানে একটি বন্ধনী তৈরি করুন।
  • ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের বানান করার সময়, ‘জ’ এবং ‘ঞ’ দুটি বর্ণকে পাশাপাশি লিখুন।
  • ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ এবং বানানে ভুল করা এড়াতে, নিয়মিত অনুশীলন করুন।
 

‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণ দিয়ে গঠিত কিছু শব্দ

  • জ্ঞান

‘জ্ঞান’ শব্দের অর্থ হল বোঝা, উপলব্ধি করা, জানা। ‘জ্ঞান’ শব্দের বানান হল ‘জ্ঞ’। ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ ‘ঝ’-এর মতো। তবে ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ ‘ঝ’-এর চেয়ে একটু বেশি তীব্র হয়।

  • বিজ্ঞান

‘বিজ্ঞান’ শব্দের অর্থ হল প্রকৃতির রহস্য উদঘাটন করা, প্রকৃতির নিয়মগুলি জানা। ‘বিজ্ঞান’ শব্দের বানান হল ‘জ্ঞ’। ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ ‘ঝ’-এর মতো। তবে ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ ‘ঝ’-এর চেয়ে একটু বেশি তীব্র হয়।

  • সংজ্ঞা

‘সংজ্ঞা’ শব্দের অর্থ হল কোন কিছুর সংক্ষিপ্ত ব্যাখ্যা। ‘সংজ্ঞা’ শব্দের বানান হল ‘জ্ঞ’। ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ ‘ঝ’-এর মতো। তবে ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ ‘ঝ’-এর চেয়ে একটু বেশি তীব্র হয়।

  • জ্ঞেয়

‘জ্ঞেয়’ শব্দের অর্থ হল যা জানা যায়। ‘জ্ঞেয়’ শব্দের বানান হল ‘জ্ঞ’। ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ ‘ঝ’-এর মতো। তবে ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ ‘ঝ’-এর চেয়ে একটু বেশি তীব্র হয়।

  • জ্ঞেয়তা

‘জ্ঞেয়তা’ শব্দের অর্থ হল জানার ক্ষমতা। ‘জ্ঞেয়তা’ শব্দের বানান হল ‘জ্ঞ’। ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ ‘ঝ’-এর মতো। তবে ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ ‘ঝ’-এর চেয়ে একটু বেশি তীব্র হয়।

  • অজ্ঞ

‘অজ্ঞ’ শব্দের অর্থ হল যার জ্ঞান নেই। ‘অজ্ঞ’ শব্দের বানান হল ‘জ্ঞ’। ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ ‘ঝ’-এর মতো। তবে ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ ‘ঝ’-এর চেয়ে একটু বেশি তীব্র হয়।

  • অজ্ঞতা

‘অজ্ঞতা’ শব্দের অর্থ হল জ্ঞানের অভাব। ‘অজ্ঞতা’ শব্দের বানান হল ‘জ্ঞ’। ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ ‘ঝ’-এর মতো। তবে ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ ‘ঝ’-এর চেয়ে একটু বেশি তীব্র হয়।

‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ এবং বানানে ভুল

‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ এবং বানানে অনেকেই ভুল করে থাকেন। ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ ‘ঝ’-এর মতো হলেও, ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ ‘ঝ’-এর চেয়ে একটু বেশি তীব্র হয়। তাই অনেকেই ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ ‘ঝ’ হিসেবে করে থাকেন। এছাড়াও, অনেকেই ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের বানান ‘ঞ্জ’ বা ‘ঞ্জ’ হিসেবে করে থাকেন। তবে এটি ভুল। ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণটি কেবলমাত্র ‘জ’ এবং ‘ঞ’ মিলে গঠিত হয়।

‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের উচ্চারণ এবং বানানে ভুল করা এড়াতে, নিয়মিত অনুশীলন করা প্রয়োজন।

বিজ্ঞান শব্দের সন্ধি বিচ্ছেদ

বিজ্ঞান শব্দের সন্ধি বিচ্ছেদ হল বি+জ্ঞান

বি হল একটি ব্যঞ্জনবর্ণ এবং জ্ঞান হল একটি তৎসম শব্দ। তৎসম শব্দের ক্ষেত্রে, প্রথম বর্ণটি ‘অ’ হলেও, সেটি সন্ধির বিবেচনায় আসে না। তাই, বিজ্ঞান শব্দের সন্ধি বিচ্ছেদ হল বি+জ্ঞান

বিজ্ঞান শব্দের উচ্চারণ হল বিজ়জ্ঞান। অর্থাৎ, ‘বি’ এবং ‘জ্ঞান’ মিলে ‘জ’-এর মতো উচ্চারিত হয়। তবে, ‘বিজ্ঞান’ শব্দের উচ্চারণ ‘জ’-এর চেয়ে একটু বেশি তীব্র হয়।

বিজ্ঞান শব্দের অর্থ হল প্রকৃতির রহস্য উদঘাটন করা, প্রকৃতির নিয়মগুলি জানা।

বিজ্ঞান শব্দের বর্ণ বিশ্লেষণ

বিজ্ঞান শব্দের বর্ণ বিশ্লেষণ নিম্নরূপ:

বর্ন উচ্চারণ প্রকৃতি প্রত্যয়
বি বি ব্যঞ্জন
জ্ঞা জ্ঞা ব্যঞ্জন
ব্যঞ্জন

বিজ্ঞান শব্দটিতে মোট তিনটি বর্ণ রয়েছে। এর মধ্যে দুটি ব্যঞ্জনবর্ণ এবং একটি স্বরবর্ণ রয়েছে। প্রথম বর্ণটি ‘বি’ একটি ব্যঞ্জনবর্ণ এবং দ্বিতীয় এবং তৃতীয় বর্ণটি ‘জ্ঞান’ একটি তৎসম শব্দ। তৎসম শব্দের ক্ষেত্রে, প্রথম বর্ণটি ‘অ’ হলেও, সেটি প্রত্যয়ের বিবেচনায় আসে না। তাই, বিজ্ঞান শব্দের বর্ণ বিশ্লেষণ হল বি+জ্ঞান

বিজ্ঞান শব্দের উচ্চারণ হল বিজ়জ্ঞান। অর্থাৎ, ‘বি’ এবং ‘জ্ঞান’ মিলে ‘জ’-এর মতো উচ্চারিত হয়। তবে, ‘বিজ্ঞান’ শব্দের উচ্চারণ ‘জ’-এর চেয়ে একটু বেশি তীব্র হয়।

বিজ্ঞান শব্দের অর্থ হল প্রকৃতির রহস্য উদঘাটন করা, প্রকৃতির নিয়মগুলি জানা।

বিজ্ঞান বানান এর যুক্তবর্ণ

বিজ্ঞান শব্দের বানানে একটি মাত্র যুক্তবর্ণ রয়েছে। সেটি হল জ্ঞ। এই যুক্তবর্ণটি এবং -এর মিলন থেকে তৈরি। জ্ঞ-এর উচ্চারণ হল জ়। অর্থাৎ, ‘বি’ এবং ‘জ্ঞান’ মিলে ‘জ’-এর মতো উচ্চারিত হয়। তবে, ‘বিজ্ঞান’ শব্দের উচ্চারণ ‘জ’-এর চেয়ে একটু বেশি তীব্র হয়।

বিজ্ঞান বানান কিভাবে

বিজ্ঞান শব্দের বানান হল বিজ্ঞান। এই শব্দের বানানে একটি মাত্র যুক্তবর্ণ রয়েছে। সেটি হল জ্ঞ। এই যুক্তবর্ণটি জ এবং ঞ-এর মিলন থেকে তৈরি। জ্ঞ-এর উচ্চারণ হল জ়। অর্থাৎ, ‘বি’ এবং ‘জ্ঞান’ মিলে ‘জ’-এর মতো উচ্চারিত হয়। তবে, ‘বিজ্ঞান’ শব্দের উচ্চারণ ‘জ’-এর চেয়ে একটু বেশি তীব্র হয়।

বিজ্ঞান শব্দের বানানের বিস্তারিত বিবরণ নিম্নরূপ:

  • বি – একটি ব্যঞ্জনবর্ণ
  • জ্ঞা – একটি তৎসম শব্দ, যা জ্ঞ যুক্তবর্ণ দ্বারা গঠিত
  •  – একটি ব্যঞ্জনবর্ণ

বিজ্ঞান শব্দের উচ্চারণ নিম্নরূপ:

  • বি – বি
  • জ্ঞা – জ়্জ্ঞান
  •  – ন

অতএব, বিজ্ঞান শব্দের বানান হল বিজ্ঞান। এই শব্দের উচ্চারণ হল বিজ়জ্ঞান

আমাদের আরেকটি পোস্ট দেখুন: ব্যাকরণ শব্দের ব্যুৎপত্তিগত অর্থ কি

বিজ্ঞান শব্দের যুক্তবর্ণ

বিজ্ঞান শব্দের যুক্তবর্ণ হল জ্ + ঞ। অর্থাৎ, ‘বি’ ও ‘জ্ঞান’ শব্দের যুক্তবর্ণ হল ‘জ্ঞ’। এই যুক্তবর্ণটির উচ্চারণ ‘গ্য’-এর মতো।

উপসংহার

‘বিজ্ঞান’ শব্দের সঠিক যুক্তবর্ণের সঠিক রূপ হল ‘জ্ঞ’। ‘জ্ঞ’ যুক্তবর্ণের সঠিক উচ্চারণ এবং বানান করার জন্য, ‘জ’ এবং ‘ঞ’ মিলে একটি বন্ধনী তৈরি করতে হবে এবং ‘জ’ এবং ‘ঞ’ দুটি বর্ণকে পাশাপাশি লিখতে হবে।

বিজ্ঞান শব্দের যুক্তবর্ণ নিয়ে কিছু প্রশ্ন উত্তর

বিজ্ঞান শব্দের যুক্তবর্ণ কী?

বিজ্ঞান শব্দের যুক্তবর্ণ হল জ্ + ঞ। অর্থাৎ, ‘বি’ ও ‘জ্ঞান’ শব্দের যুক্তবর্ণ হল ‘জ্ঞ’। এই যুক্তবর্ণটির উচ্চারণ ‘গ্য’-এর মতো।

বিজ্ঞান শব্দের যুক্তবর্ণটি কীভাবে উচ্চারণ করতে হয়?

বিজ্ঞান শব্দের যুক্তবর্ণটি উচ্চারণ করতে হলে প্রথমে ‘জ্’-এর উচ্চারণ করতে হবে, তারপর ‘ঞ’-এর উচ্চারণ করতে হবে। অর্থাৎ, ‘জ্’-এর উচ্চারণ ‘জ’-এর মতো এবং ‘ঞ’-এর উচ্চারণ ‘ণ’-এর মতো। এই দুটি উচ্চারণ একসাথে করলে ‘গ্য’-এর মতো শব্দ হয়।

বিজ্ঞান শব্দের যুক্তবর্ণটি কেন ‘জ্ঞ’?

বাংলা ভাষায় ব্যবহৃত যুক্তবর্ণগুলির একটি নির্দিষ্ট নিয়ম রয়েছে। সেই নিয়ম অনুসারে, ‘জ’ এবং ‘ঞ’-এর যুক্তবর্ণ হল ‘জ্ঞ’।

বিজ্ঞান শব্দের যুক্তবর্ণটি কি অন্য কোন ভাষায়ও ব্যবহৃত হয়?

হ্যাঁ, বিজ্ঞান শব্দের যুক্তবর্ণটি অন্যান্য অনেক ভাষায়ও ব্যবহৃত হয়। যেমন, সংস্কৃত, হিন্দি, মালয়, ইন্দোনেশিয়ান ইত্যাদি ভাষায়।

Leave a Comment