জরিপ কাকে বলে? জরিপ কত প্রকার ও কি কি? জরিপের গুরুত্ব?

Rate this post

এ প্রবন্ধটি থেকে আপনি জানতে পারবেন জরিপ কাকে বলে? জরিপ কত প্রকার ও কি কি? জরিপের গুরুত্ব? নিচে জরিপসম্পর্কে বিস্তার ভাবে আলোচনা করা হলো।

জরিপ কাকে বলে?

জরিপ হলো একটি নির্দিষ্ট জনগোষ্ঠীর সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করার জন্য পরিচালিত একটি পরিকল্পিত ও পদ্ধতিগত প্রক্রিয়া। জরিপের মাধ্যমে জনগোষ্ঠীর আচরণ, মতামত, বিশ্বাস, ধারণা, ইত্যাদি সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করা হয়। জরিপের ফলাফল বিভিন্ন সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

জরিপের প্রকারভেদ

জরিপের বিভিন্ন প্রকারভেদ রয়েছে। জরিপের প্রকারভেদ নির্ভর করে জরিপের উদ্দেশ্য, জরিপের পদ্ধতি, জরিপের আওতা, ইত্যাদির উপর। জরিপের প্রধান প্রধান প্রকারভেদগুলি হলো:

  • জনসংখ্যাভিত্তিক জরিপ: এই ধরনের জরিপে জনসংখ্যার বিভিন্ন বৈশিষ্ট্য, যেমন- বয়স, লিঙ্গ, শিক্ষাগত যোগ্যতা, পেশা, আয়, ইত্যাদি সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করা হয়।
  • বাণিজ্যিক জরিপ: এই ধরনের জরিপে গ্রাহকদের চাহিদা, পণ্য বা সেবার ব্যবহার, ক্রয়শক্তি, ইত্যাদি সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করা হয়।
  • সামাজিক জরিপ: এই ধরনের জরিপে সমাজের বিভিন্ন দিক, যেমন- সামাজিক সমস্যা, সামাজিক মূল্যবোধ, সামাজিক পরিবর্তন, ইত্যাদি সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করা হয়।
  • রাজনৈতিক জরিপ: এই ধরনের জরিপে জনগণের রাজনৈতিক মতামত, রাজনৈতিক দলগুলির প্রতি জনগণের সমর্থন, ইত্যাদি সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করা হয়।

জরিপের গুরুত্ব

জরিপের গুরুত্ব অপরিসীম। জরিপের মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের তথ্য সংগ্রহ করা যায়, যা বিভিন্ন সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। জরিপের মাধ্যমে প্রাপ্ত তথ্যের মাধ্যমে নিম্নলিখিত বিষয়গুলি সম্পর্কে জানা যায়:

  • জনগোষ্ঠীর আচরণ, মতামত, বিশ্বাস, ধারণা, ইত্যাদি সম্পর্কে।
  • জনসংখ্যার বিভিন্ন বৈশিষ্ট্য, যেমন- বয়স, লিঙ্গ, শিক্ষাগত যোগ্যতা, পেশা, আয়, ইত্যাদি সম্পর্কে।
  • গ্রাহকদের চাহিদা, পণ্য বা সেবার ব্যবহার, ক্রয়শক্তি, ইত্যাদি সম্পর্কে।
  • সমাজের বিভিন্ন দিক, যেমন- সামাজিক সমস্যা, সামাজিক মূল্যবোধ, সামাজিক পরিবর্তন, ইত্যাদি সম্পর্কে।
  • জনগণের রাজনৈতিক মতামত, রাজনৈতিক দলগুলির প্রতি জনগণের সমর্থন, ইত্যাদি সম্পর্কে।

জরিপের মাধ্যমে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে বিভিন্ন ধরনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা যায়। যেমন-

  • নতুন পণ্য বা সেবা বাজারজাত করার সিদ্ধান্ত।
  • জনগণের চাহিদা অনুযায়ী পণ্য বা সেবার মান উন্নত করার সিদ্ধান্ত।
  • সামাজিক সমস্যা সমাধানের জন্য কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের সিদ্ধান্ত।
  • রাজনৈতিক দলগুলি তাদের নির্বাচনী প্রচারণার কৌশল নির্ধারণের সিদ্ধান্ত।

সুতরাং, জরিপ একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ প্রক্রিয়া। জরিপের মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের তথ্য সংগ্রহ করা যায়, যা বিভিন্ন সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

জরিপের প্রয়োজনীয়তা

জরিপের প্রয়োজনীয়তা নিম্নরূপ:

  • জরিপের মাধ্যমে একটি নির্দিষ্ট জনগোষ্ঠীর সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করা যায়। এই তথ্যগুলি বিভিন্ন সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।
  • জরিপের মাধ্যমে জনমত গঠন বা প্রভাবিত করা যায়।
  • জরিপের মাধ্যমে সরকার বিভিন্ন ধরনের সরকারি পরিকল্পনা প্রণয়ন করতে পারে।

জরিপের সীমাবদ্ধতা

জরিপের কিছু সীমাবদ্ধতা রয়েছে। যেমন-

  • জরিপের মাধ্যমে প্রাপ্ত তথ্য সর্বদা সঠিক নাও হতে পারে। জরিপের পদ্ধতি, জরিপের প্রশ্নপত্র, জরিপের কর্মীদের দক্ষতা, ইত্যাদির উপর জরিপের ফলাফল নির্ভর করে।
  • জরিপের মাধ্যমে প্রাপ্ত তথ্য একটি নির্দিষ্ট জনগোষ্ঠীর উপর প্রযোজ্য হতে পারে। অন্য জনগোষ্ঠীর ক্ষেত্রে এই তথ্যগুলি প্রযোজ্য নাও হতে পারে।

জরিপের নীতিমালা

জরিপ পরিচালনায় নিম্নলিখিত নীতিমালাগুলি অনুসরণ করা উচিত:

  • জরিপের উদ্দেশ্য সুনির্দিষ্টভাবে নির্ধারণ করা উচিত।
  • জরিপের জনগোষ্ঠী সুনির্দিষ্টভাবে নির্ধারণ করা উচিত।
  • জরিপের পদ্ধতি যথাযথভাবে নির্ধারণ করা উচিত।
  • জরিপের প্রশ্নপত্র সুনির্দিষ্ট এবং বোধগম্য হওয়া উচিত।
  • জরিপের কর্মীরা দক্ষ এবং অভিজ্ঞ হওয়া উচিত।
  • জরিপের ফলাফল যথাযথভাবে বিশ্লেষণ করা উচিত।

জরিপের পদ্ধতি

জরিপ পরিচালনার জন্য বিভিন্ন পদ্ধতি ব্যবহার করা যেতে পারে। জরিপের পদ্ধতি নির্ভর করে জরিপের উদ্দেশ্য, জরিপের আওতা, জরিপের ব্যয়, ইত্যাদির উপর। জরিপের প্রধান প্রধান পদ্ধতিগুলি হলো:

  • মুখোমুখি জরিপ: এই পদ্ধতিতে জরিপকারীরা ব্যক্তিগতভাবে সাক্ষাৎ করে জরিপ অংশগ্রহণকারীদের কাছ থেকে তথ্য সংগ্রহ করে।
  • ফোন জরিপ: এই পদ্ধতিতে জরিপকারীরা ফোনে যোগাযোগ করে জরিপ অংশগ্রহণকারীদের কাছ থেকে তথ্য সংগ্রহ করে।
  • পোস্টাল জরিপ: এই পদ্ধতিতে জরিপকারীরা জরিপ অংশগ্রহণকারীদের কাছে প্রশ্নপত্র পাঠিয়ে দেয় এবং জরিপ অংশগ্রহণকারীরা প্রশ্নপত্র পূরণ করে জরিপকারীদের কাছে ফেরত পাঠায়।
  • অনলাইন জরিপ: এই পদ্ধতিতে জরিপকারীরা একটি ওয়েবসাইটে প্রশ্নপত্র স্থাপন করে এবং জরিপ অংশগ্রহণকারীরা ওয়েবসাইট থেকে প্রশ্নপত্র পূরণ করে।

জরিপের প্রশ্নপত্র

জরিপের মাধ্যমে তথ্য সংগ্রহের জন্য একটি প্রশ্নপত্র ব্যবহার করা হয়। প্রশ্নপত্রটি এমনভাবে তৈরি করতে হবে যাতে প্রশ্নগুলি সুনির্দিষ্ট, বোধগম্য এবং জরিপের উদ্দেশ্য পূরণ করে। প্রশ্নপত্রের প্রশ্নগুলি বিভিন্ন ধরনের হতে পারে, যেমন- বদ্ধ প্রশ্ন, খোলা প্রশ্ন, স্কেল প্রশ্ন, ইত্যাদি।

জরিপের ফলাফল বিশ্লেষণ

জরিপ পরিচালনার পর ফলাফল বিশ্লেষণ করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ফলাফল বিশ্লেষণের মাধ্যমে জরিপের উদ্দেশ্য পূরণ হয়েছে কিনা তা নির্ধারণ করা যায়। ফলাফল বিশ্লেষণের জন্য বিভিন্ন পদ্ধতি ব্যবহার করা যেতে পারে, যেমন- পরিসংখ্যানগত পদ্ধতি, গণিতের পদ্ধতি, ইত্যাদি।

জরিপের সীমাবদ্ধতা

জরিপের কিছু সীমাবদ্ধতা রয়েছে। যেমন-

  • জরিপের মাধ্যমে প্রাপ্ত তথ্য সর্বদা সঠিক নাও হতে পারে। জরিপের পদ্ধতি, জরিপের প্রশ্নপত্র, জরিপের কর্মীদের দক্ষতা, ইত্যাদির উপর জরিপের ফলাফল নির্ভর করে।
  • জরিপের মাধ্যমে প্রাপ্ত তথ্য একটি নির্দিষ্ট জনগোষ্ঠীর উপর প্রযোজ্য হতে পারে। অন্য জনগোষ্ঠীর ক্ষেত্রে এই তথ্যগুলি প্রযোজ্য নাও হতে পারে।
  • জরিপ পরিচালনা ব্যয়বহুল হতে পারে।
  • জরিপ পরিচালনা সময়সাপেক্ষ হতে পারে।

জরিপের মাধ্যমে প্রাপ্ত তথ্য সর্বদা সঠিক নাও হতে পারে

জরিপের মাধ্যমে প্রাপ্ত তথ্যের নির্ভুলতা জরিপের পদ্ধতি, জরিপের প্রশ্নপত্র, জরিপের কর্মীদের দক্ষতা, ইত্যাদির উপর নির্ভর করে। যদি জরিপের পদ্ধতি যথাযথভাবে প্রয়োগ না করা হয়, তাহলে জরিপের মাধ্যমে প্রাপ্ত তথ্য সঠিক নাও হতে পারে। উদাহরণস্বরূপ, যদি জরিপের প্রশ্নপত্রটি সুনির্দিষ্ট এবং বোধগম্য না হয়, তাহলে জরিপ অংশগ্রহণকারীরা সঠিকভাবে প্রশ্নগুলি বুঝতে নাও পারে এবং সঠিকভাবে উত্তর দিতে নাও পারে।

জরিপের মাধ্যমে প্রাপ্ত তথ্য একটি নির্দিষ্ট জনগোষ্ঠীর উপর প্রযোজ্য হতে পারে

জরিপের মাধ্যমে প্রাপ্ত তথ্য সাধারণত একটি নির্দিষ্ট জনগোষ্ঠীর উপর প্রযোজ্য হয়। উদাহরণস্বরূপ, যদি একটি জরিপের মাধ্যমে একটি নির্দিষ্ট এলাকার জনসংখ্যার সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করা হয়, তাহলে এই তথ্যটি অন্য এলাকার জনসংখ্যার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নাও হতে পারে।

জরিপ পরিচালনা ব্যয়বহুল হতে পারে

জরিপ পরিচালনা ব্যয়বহুল হতে পারে। জরিপ পরিচালনার জন্য বিভিন্ন খরচ হয়, যেমন- জরিপকারীদের পারিশ্রমিক, প্রশ্নপত্র তৈরির খরচ, জরিপ পরিচালনার খরচ, ইত্যাদি।

জরিপ পরিচালনা সময়সাপেক্ষ হতে পারে

জরিপ পরিচালনা সময়সাপেক্ষ হতে পারে। জরিপের পদ্ধতির উপর নির্ভর করে জরিপ পরিচালনায় কয়েক দিন থেকে কয়েক মাস সময় লাগতে পারে।

জরিপের সীমাবদ্ধতাগুলি হ্রাস করার উপায়

জরিপের সীমাবদ্ধতাগুলি হ্রাস করার জন্য নিম্নলিখিত পদক্ষেপগুলি নেওয়া যেতে পারে:

  • জরিপের পদ্ধতি যথাযথভাবে প্রয়োগ করা।
  • জরিপের প্রশ্নপত্রটি সুনির্দিষ্ট এবং বোধগম্য করা।
  • জরিপকারীদের দক্ষতা বৃদ্ধি করা।
  • জরিপের আওতা সীমিত করা।
  • জরিপ পরিচালনার জন্য প্রযুক্তির ব্যবহার করা।

আমাদের অন্য একটি পোস্ট: যোগ্যতা কাকে বলে?

জরিপ একটি গুরুত্বপূর্ণ গবেষণা পদ্ধতি। জরিপের মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের তথ্য সংগ্রহ করা যায়, যা বিভিন্ন সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। জরিপ পরিচালনায় সতর্কতা অবলম্বন করা এবং সীমাবদ্ধতাগুলি সম্পর্কে সচেতন থাকা জরিপের ফলাফলের নির্ভুলতা বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।

উপসংহার

জরিপ একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ প্রক্রিয়া। জরিপের মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের তথ্য সংগ্রহ করা যায়, যা বিভিন্ন সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। জরিপ পরিচালনায় যথাযথ নীতিমালা অনুসরণ করা হলে জরিপের ফলাফল অধিকতর নির্ভরযোগ্য হবে।

Leave a Comment